ঢাকা ০২:২৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মেক্সিকোর প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট ক্লাউদিয়া শাইনবাউম

  • বার্তা কক্ষ
  • আপডেট সময় : ০৫:০১:৩৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩ জুন ২০২৪
  • ১৬ বার পড়া হয়েছে

মেক্সিকোর প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট ক্লাউদিয়া শাইনবাউম

 

মেক্সিকোর ২০০ বছরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো নারী প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন ক্লাউদিয়া শাইনবাউম।

স্থানীয় সময় রবিবার (২ জুন) দেশটির নির্বাচনি কর্তৃপক্ষ একটি পরিসংখ্যানগত নমুনা ঘোষণা করেন। যেখানে ক্লাউদিয়া শাইনবাউম এগিয়ে রয়েছেন।

এর পরই ডাউনটাউনের একটি হোটেলে শেইনবাউম হাসিমুখে বলেন, ‘আমি হব মেক্সিকোর প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট।’ তিনি বলেন, ‘আমার একার দ্বারা এটি সম্ভব হয়নি। আমরা সবাই এটা করতে পেরেছি, আমাদের নেত্রীরা, যারা আমাদের মাতৃভূমি দিয়েছে, আমাদের মা, আমাদের মেয়ে এবং আমাদের নাতনিরাও সঙ্গে রয়েছেন।’

তিনি বলেন, ‘আমরা প্রমাণ করেছি যে মেক্সিকো একটি গণতান্ত্রিক দেশ, যেখানে শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হয়েছে।’

ন্যাশনাল ইলেক্টোরাল ইনস্টিটিউটের প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন, পরিসংখ্যানগত নমুনা অনুযায়ী, শেইনবাউম ৫৮ দশমিক ৩ শতাংশ থেকে ৬০ দশমিক ৭ শতাংশ ভোট পেয়েছেন। বিরোধী প্রার্থী জোচিটল গ্যালভেজ পেয়েছেন ২৬ দশমিক ৬ শতাংশ থেকে ২৮ দশমিক ৬ শতাংশ ভোট। এছাড়া আরেক প্রার্থী জর্জ আলভারেজ মায়েনেজ পেয়েছেন ৯ দশমিক ৯ শতাংশ থেকে ১০ দশমিক ৮ শতাংশ ভোট ছিল। শেইনবাউমের মোরেনা পার্টিও কংগ্রেসের উভয় কক্ষে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করবে বলে ধারণা করা হয়েছিল।

জলবায়ু বিজ্ঞানী ও মেক্সিকো সিটির সাবেক মেয়র বলেন, তার দুই প্রতিদ্বন্দ্বী তাকে ফোন করে জয়কে স্বাগত জানিয়েছেন।

প্রায় ৫০ শতাংশ ভোটকেন্দ্রের প্রতিবেদন অনুযায়ী আনুষ্ঠানিক প্রাথমিক গণনায় নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী গালভেজের চেয়ে ২৮ পয়েন্ট এগিয়ে রয়েছেন মেক্সিকোর সাবেক মেয়র শাইনবাউম।

এখানে একটি বিষয় লক্ষ্যণীয় হলো প্রধান দুই প্রার্থী নারী হওয়া সত্ত্বেও রবিবার মেক্সিকো ইতিহাস গড়বে, তা নিয়ে সংশয় ছিল না। শাইনবাউমই হবেন ইহুদি বংশোদ্ভুত প্রথম ব্যক্তি হিসেবে ক্যাথলিক অধ্যুষিত দেশটির নেতৃত্ব দেবেন।

আগামী ১ অক্টোবর থেকে তার ছয় বছরের মেয়াদ শুরু হবে। মেক্সিকোর সংবিধান পুনর্নির্বাচনের সুযোগ নেই।

এই বামপন্থী নেত্রী বলেছেন, তিনি বিশ্বাস করেন অর্থনৈতিক বৈষম্য মোকাবিলা এবং একটি শক্তিশালী সামাজিক সুরক্ষা জাল সরবরাহে সরকারের দৃঢ় ভূমিকা রয়েছে। যা অনেকটা তার রাজনৈতিক উপদেষ্টা প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওব্রাডরের মতো।

লোপেজ ওব্রাদর যে রাজনৈতিক আন্দোলন তৈরি করেছিলেন তা শোইনবাউম প্রেসিডেন্ট হিসেবে বিজয়ী হওয়ার পরও তা টিকে থাকবে বলে ইঙ্গিত দেয়।

তার অভিষিক্ত উত্তরসূরি, ৬১ বছর বয়সী শাইনবাউম গ্যালভেজের উৎসাহী চ্যালেঞ্জ সত্ত্বেও তারবার্তায় প্রচারণায় নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। মেক্সিকোতে এবারই প্রথম প্রধান দুই প্রতিপক্ষই ছিল নারী।

নির্বাচনি কর্তৃপক্ষের ঘোষণার পরপরই লোপেজ ওব্রাদর বলেন, ‘অবশ্যই আমি ক্লাউদিয়া শাইনবাউমকে আমার শ্রদ্ধার সঙ্গে অভিনন্দন জানাচ্ছি। ২০০ বছরের মধ্যে তিনিই হতে যাচ্ছেন মেক্সিকোর প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট।’

ব্যবধান ধরে রাখতে পারলে ২০১৮ সালের পর তার ব্যাপক বিজয়ের দিকে এগিয়ে যাবে। লোপেজ ওব্রাদর দুটি ব্যর্থ চেষ্টার পরে ৫৩ দশমিক ২ শতাংশ ভোট পেয়ে প্রেসিডেন্ট পদে জয়ী হন। ত্রিমুখী প্রতিযোগিতায় ন্যাশনাল অ্যাকশন ২২ দশমিক ৩ শতাংশ এবং ইনস্টিটিউশনাল রেভল্যুশনারি পার্টি ১৬ দশমিক ৫ শতাংশ ভোট পেয়েছিল।

তারপরও লোপেজ ওব্রাদর যে ধরনের প্রশ্নাতীত ভক্তি উপভোগ করেছেন, শাইনবাউমের ক্ষেত্রে তা উপভোগ করার সম্ভাবনা কম।

ট্যাগস :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

আপলোডকারীর তথ্য

সেন্টমার্টিনে মিয়ানমারের গোলা পড়া বন্ধ করতে চেষ্টা চলছে: ওবায়দুল কাদের

মেক্সিকোর প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট ক্লাউদিয়া শাইনবাউম

আপডেট সময় : ০৫:০১:৩৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩ জুন ২০২৪

 

মেক্সিকোর ২০০ বছরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো নারী প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন ক্লাউদিয়া শাইনবাউম।

স্থানীয় সময় রবিবার (২ জুন) দেশটির নির্বাচনি কর্তৃপক্ষ একটি পরিসংখ্যানগত নমুনা ঘোষণা করেন। যেখানে ক্লাউদিয়া শাইনবাউম এগিয়ে রয়েছেন।

এর পরই ডাউনটাউনের একটি হোটেলে শেইনবাউম হাসিমুখে বলেন, ‘আমি হব মেক্সিকোর প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট।’ তিনি বলেন, ‘আমার একার দ্বারা এটি সম্ভব হয়নি। আমরা সবাই এটা করতে পেরেছি, আমাদের নেত্রীরা, যারা আমাদের মাতৃভূমি দিয়েছে, আমাদের মা, আমাদের মেয়ে এবং আমাদের নাতনিরাও সঙ্গে রয়েছেন।’

তিনি বলেন, ‘আমরা প্রমাণ করেছি যে মেক্সিকো একটি গণতান্ত্রিক দেশ, যেখানে শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হয়েছে।’

ন্যাশনাল ইলেক্টোরাল ইনস্টিটিউটের প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন, পরিসংখ্যানগত নমুনা অনুযায়ী, শেইনবাউম ৫৮ দশমিক ৩ শতাংশ থেকে ৬০ দশমিক ৭ শতাংশ ভোট পেয়েছেন। বিরোধী প্রার্থী জোচিটল গ্যালভেজ পেয়েছেন ২৬ দশমিক ৬ শতাংশ থেকে ২৮ দশমিক ৬ শতাংশ ভোট। এছাড়া আরেক প্রার্থী জর্জ আলভারেজ মায়েনেজ পেয়েছেন ৯ দশমিক ৯ শতাংশ থেকে ১০ দশমিক ৮ শতাংশ ভোট ছিল। শেইনবাউমের মোরেনা পার্টিও কংগ্রেসের উভয় কক্ষে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করবে বলে ধারণা করা হয়েছিল।

জলবায়ু বিজ্ঞানী ও মেক্সিকো সিটির সাবেক মেয়র বলেন, তার দুই প্রতিদ্বন্দ্বী তাকে ফোন করে জয়কে স্বাগত জানিয়েছেন।

প্রায় ৫০ শতাংশ ভোটকেন্দ্রের প্রতিবেদন অনুযায়ী আনুষ্ঠানিক প্রাথমিক গণনায় নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী গালভেজের চেয়ে ২৮ পয়েন্ট এগিয়ে রয়েছেন মেক্সিকোর সাবেক মেয়র শাইনবাউম।

এখানে একটি বিষয় লক্ষ্যণীয় হলো প্রধান দুই প্রার্থী নারী হওয়া সত্ত্বেও রবিবার মেক্সিকো ইতিহাস গড়বে, তা নিয়ে সংশয় ছিল না। শাইনবাউমই হবেন ইহুদি বংশোদ্ভুত প্রথম ব্যক্তি হিসেবে ক্যাথলিক অধ্যুষিত দেশটির নেতৃত্ব দেবেন।

আগামী ১ অক্টোবর থেকে তার ছয় বছরের মেয়াদ শুরু হবে। মেক্সিকোর সংবিধান পুনর্নির্বাচনের সুযোগ নেই।

এই বামপন্থী নেত্রী বলেছেন, তিনি বিশ্বাস করেন অর্থনৈতিক বৈষম্য মোকাবিলা এবং একটি শক্তিশালী সামাজিক সুরক্ষা জাল সরবরাহে সরকারের দৃঢ় ভূমিকা রয়েছে। যা অনেকটা তার রাজনৈতিক উপদেষ্টা প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওব্রাডরের মতো।

লোপেজ ওব্রাদর যে রাজনৈতিক আন্দোলন তৈরি করেছিলেন তা শোইনবাউম প্রেসিডেন্ট হিসেবে বিজয়ী হওয়ার পরও তা টিকে থাকবে বলে ইঙ্গিত দেয়।

তার অভিষিক্ত উত্তরসূরি, ৬১ বছর বয়সী শাইনবাউম গ্যালভেজের উৎসাহী চ্যালেঞ্জ সত্ত্বেও তারবার্তায় প্রচারণায় নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। মেক্সিকোতে এবারই প্রথম প্রধান দুই প্রতিপক্ষই ছিল নারী।

নির্বাচনি কর্তৃপক্ষের ঘোষণার পরপরই লোপেজ ওব্রাদর বলেন, ‘অবশ্যই আমি ক্লাউদিয়া শাইনবাউমকে আমার শ্রদ্ধার সঙ্গে অভিনন্দন জানাচ্ছি। ২০০ বছরের মধ্যে তিনিই হতে যাচ্ছেন মেক্সিকোর প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট।’

ব্যবধান ধরে রাখতে পারলে ২০১৮ সালের পর তার ব্যাপক বিজয়ের দিকে এগিয়ে যাবে। লোপেজ ওব্রাদর দুটি ব্যর্থ চেষ্টার পরে ৫৩ দশমিক ২ শতাংশ ভোট পেয়ে প্রেসিডেন্ট পদে জয়ী হন। ত্রিমুখী প্রতিযোগিতায় ন্যাশনাল অ্যাকশন ২২ দশমিক ৩ শতাংশ এবং ইনস্টিটিউশনাল রেভল্যুশনারি পার্টি ১৬ দশমিক ৫ শতাংশ ভোট পেয়েছিল।

তারপরও লোপেজ ওব্রাদর যে ধরনের প্রশ্নাতীত ভক্তি উপভোগ করেছেন, শাইনবাউমের ক্ষেত্রে তা উপভোগ করার সম্ভাবনা কম।