ঢাকা ০২:৩৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তৃতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচনে বিজয়ী হলেন যারা

  • বার্তা কক্ষ
  • আপডেট সময় : ০৫:৪৭:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪
  • ১৬ বার পড়া হয়েছে

 

 

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে দেশের ৮৭ উপজেলায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (২৯ মে) সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোটগ্রহণ চলে। এ ধাপে আরও ২৩ উপজেলায় ভোট হওয়ার কথা থাকলেও ২৬ মে ও ২৭ মে ঘূর্ণিঝড় রিমাল ও মামলাজনিত কারণে এসব উপজেলায় নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। এসব উপজেলার মধ্যে ২০ উপজেলায় ভোট হবে আগামী ৯ জুন।

ভোটগ্রহণের পর গণনা শেষে রাতে চলছে ফলাফল ঘোষণা।
নির্বাচনে এ পর্যন্ত ঘোষিত ফলাফলে যারা বিজয়ী হয়েছেন, তাদের তালিকা তুলে ধরা হলো-

বগুড়া:

বগুড়া সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন জেলা যুবলীগের সভাপতি শুভাশীষ পোদ্দার লিটন। তিনি আনারস প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৩৫ হাজার ৭৭১টি। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বগুড়া সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু সুফিয়ান সফিক ঘোড়া প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ২৪ হাজার ১৮৫টি ও জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক সুলতান মাহমুদ খান রনি মোটরসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ২১ হাজার ৫৩৬ ভোট।

সুনামগঞ্জ:

সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলা পরিষদ দ্বিতীয় মেয়াদে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতা দেওয়ান তানভীর আশরাফী চৌধুরী বাবু। আনারস প্রতীকে ২৫ হাজার ৬৬১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি জেলা বিএনপির বহিষ্কৃত নেতা আরিফুল ইসলাম জুয়েল ২১ হাজার ২২৯ ভোট পেয়েছেন।

ফরিদপুর:

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে ফরিদপুরের ভাঙ্গা ও সদরপুর উপজেলায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সদরপুর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা যুবলীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম বাবুল। আনারস প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৪০ হাজার ৩৩৩ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী শফিকুর রহমান পেয়েছেন ৩৫ হাজার ৫০৮ ভোট।

অন্যদিকে ভাঙ্গা উপজেলা চেয়ারম্যান পদে কাওসার ভূইয়া বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। দোয়াত কলম প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৬২ হাজার ৮৭০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের উপসমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক মোখলেছুর রহমান ঘোড়া প্রতীকে পেয়েছেন ৫০ হাজার ৮৩০ ভোট।

নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও অতিরিক্ত জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. জিয়াউল হক খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

যশোর:
বাঘারপাড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এস এম আশরাফুল কবীর বিপুল ফারাজী (মোটরসাইকেল প্রতীক) বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন ৫১ হাজার ৬৩০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হয়েছেন উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক সাবেক সংসদ সদস্য রণজিত রায়ের ছেলে রাজীব রায় (ঘোড়া প্রতীক)। তিনি পেয়েছেন ২০ হাজার ৭৭৯ ভোট।
অভয়নগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নওয়াপাড়া পৌরসভার সাবেক মেয়র সরদার অলিয়ার রহমান (মোটরসাইকেল প্রতীক) বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন ৫৪ হাজার ৭১ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হয়েছেন রবীন অধিকারী ব্যাচা (আনারস প্রতীক)। তিনি পেয়েছেন ৪৮ হাজার ২২১ ভোট।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া:

তৃতীয় ধাপে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর ও আশুগঞ্জ উপজেলায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাঞ্ছারামপুরে তৃতীয়াবারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম। ঘোড়া প্রতীকে তিনি ৮২ হাজার ৮১৩ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আমিনুল ইসলাম তুষার আনারস প্রতীকে পেয়েছেন দুই হাজার ১৬২।

অন্যদিকে আশুগঞ্জে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য মো. জিয়াউল করিম খাঁন সাজু। মোটরসাইকেল প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৩১ হাজার ২৪৮ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বর্তমান চেয়ারম্যান মো. হানিফ মুন্সী ঘোড়া প্রতীকে পেয়েছেন ২৮ হাজার ৩৪০ ভোট।

রিটার্নিং কর্মকর্তা ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক জেসমিন সুলতানা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, এই ফলাফল বেসরকারিভাবে প্রকাশ করা হয়েছে।

রাঙ্গামাটি:

তৃতীয় ধাপে রাঙ্গামাটির লংগদু ও নানিয়ারচর উপজেলা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে লংগদু উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বাবুল দাশ বাবু বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল বারেক সরকারকে চার হাজার ১৬০ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করে বেসরকারিভাবে জয়লাভ করেছে। আনারস প্রতীকে বাবুল দাশ বাবু পেয়েছেন ১৬ হাজার ৯৮৬ ভোট এবং তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী আব্দুল বারেক সরকার ঘোড়া প্রতীকে পেয়েছেন ১২ হাজার ৮২৬ ভোট।

অন্যদিকে নানিয়ারচরে ১৪টি ভোট কেন্দ্রের সবকয়টি ফলাফলে ৬ হাজার ১৫৯ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আনারস প্রতীকের অমর জীবন চাকমা। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী জ্যোতিলাল চাকমা পেয়েছেন ৪১৬২টি ভোট।

সাতক্ষীরা:

সাতক্ষীরা সদর ও কলারোয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মশিউর রহমান বাবু ও আমিনুল ইসলাম লাল্টু বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাতে স্ব স্ব উপজেলা রির্টানিং অফিস থেকে বেসরকারিভাবে এ ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

সাতক্ষীরা সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী মশিউর রহমান বাবু ৩১ হাজার ১৯৬ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী আওয়ামী লীগ নেতা এস এম শওকত হোসেন পেয়েছেন ২৩ হাজার ৪২ ভোট।

এদিকে কলারোয় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী আওয়ামী লীগ নেতা আমিনুল ইসলাম লাল্টু ৪৭ হাজার ৮৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে দ্বিতীয় বারের মতো নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আনারস প্রতীকের প্রার্থী আলতাফ হোসেন লাল্টু পেয়েছেন ৪২ হাজার ৭৪১ ভোট।

মৌলভীবাজার:

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে (মোটরসাইকেল) প্রতীক নিয়ে ৪৬ হাজার ৬৪০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন ইমতিয়াজ আহমেদ বুলবুল (তিনি কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুস শহীদের আপন ছোট ভাই)। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মো. রফিকুর রহমান (আনারস) প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৩০ হাজার ৭১২।

শরীয়তপুর:

শরীয়তপুরে তৃতীয় ধাপের দুটি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে। ডামুড্যা উপজেলা পরিষদে প্রথমবার নির্বাচনে অংশ নিয়ে চেয়ারম্যান হয়েছেন জেলা যুবলীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আবদুর রশিদ গোলন্দাজ। অন্যদিকে গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতা হেলিকপ্টার প্রতীকের মো. মোশাররফ সরদার।

শরীয়তপুর জেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী আবদুর রশিদ গোলন্দাজ ২৪ হাজার ৯৮ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে জয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোটরসাইক প্রতীকের প্রার্থী মো. আলমগীর পেয়েছেন ১৩ হাজার ৭১৫ ভোট। অন্যদিকে গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নির্বাচিত চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা মো. মোশারফ হোসেন (হেলিকপ্টার) প্রতীক, ২০ হাজার ১৮৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাকির হোসেন দুলাল পেয়েছেন ১৫ হাজার ৪৭৫ ভোট।

লালমনিরহাট:

জেলা সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আনারস প্রতীক নিয়ে বেসরকারিভাবে ফের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন মো. কামরুজ্জামান সুজন। ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন এরশাদুল করিম রাজু। আর বিনা প্রতিদ্বিন্দিতায় নারী ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন লতিফা বেগম লাকী।

কক্সবাজার:

জেলার রামু উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন সিরাজুল ইসলাম ভুট্টো (মোটরসাইকেল)। উখিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান বিজয়ী হয়েছেন জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী (আনারস)। টেকনাফ উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন জাফর আহম্মদ (আনারস)।

নীলফামারী:

জেলা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আবুজার রহমান আনারস প্রতীক নিয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন টিয়া পাখি প্রতীকে জ্যোতির্ময় রায়। নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন জেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি ও বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান সান্তনা চক্রবর্তী।

টাঙ্গাইল:

টাঙ্গাইলের সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে তোফাজ্জল হোসেন খান তোফা ও নাগরপুরে কেএম সালমান শামস্ চেয়ারম্যান পদে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া দেলদুয়ার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মাহমুদুল হাসান মারুফ পুনরায় চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন।

টাঙ্গাইল সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন খান (দোয়াত কলম) ও নাগরপুরে প্রয়াত আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল বাতেনের ছেলে কেএম সালমান শামস্ (আনরস) চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এছাড়া দেলদুয়ার উপজেলা চেয়ারম্যান পদে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মাহমুদুল হাসান মারুফ (কাপ পিরিচ) পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন।

খাগড়াছড়ি:

খাগড়াছড়ির মহালছড়িতে তৃতীয় ধাপে উপজেলা নির্বাচনে ভোটে জয়ী হয়ে চেয়ারম্যান র্নিবাচিত হয়েছেন জেএসএস এমএন লারমা সমর্থিত বিমল চাকমা ।

প্রথমধাপে লক্ষিছড়িতে অনুষ্ঠিত উপজেলা র্নিবাচনে ২টি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত ছিল। স্থগিতকৃত এ ২টি কেন্দ্রেও বুধবার (২৯ মে) ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। যার ভিত্তিতে লক্ষিছড়িতে চেয়ারম্যান র্নিবাচিত হন ইউপিডিএফ সমর্থিত সুপার জ্যোতি চাকমা ।

সিলেট:

তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে সিলেটের তিনটি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন নতুন দুই প্রার্থী। আর একটিতে বিজয়ী হয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান।

বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম পল্লব। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন লাউতা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা গৌছ উদ্দিন।

বালাগঞ্জে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান চেয়ারম্যান মোস্তাকুর রহমান মফুরকে পরাজিত করে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনহার মিয়া।

আর ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলায় বর্তমান চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা নুরুল ইসলামকে পরাজিত করে বিজয়ী হয়েছেন উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আশফাকুল ইসলাম সাব্বীর।

ট্যাগস :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

আপলোডকারীর তথ্য

সেন্টমার্টিনে মিয়ানমারের গোলা পড়া বন্ধ করতে চেষ্টা চলছে: ওবায়দুল কাদের

তৃতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচনে বিজয়ী হলেন যারা

আপডেট সময় : ০৫:৪৭:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪

 

 

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে দেশের ৮৭ উপজেলায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (২৯ মে) সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোটগ্রহণ চলে। এ ধাপে আরও ২৩ উপজেলায় ভোট হওয়ার কথা থাকলেও ২৬ মে ও ২৭ মে ঘূর্ণিঝড় রিমাল ও মামলাজনিত কারণে এসব উপজেলায় নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। এসব উপজেলার মধ্যে ২০ উপজেলায় ভোট হবে আগামী ৯ জুন।

ভোটগ্রহণের পর গণনা শেষে রাতে চলছে ফলাফল ঘোষণা।
নির্বাচনে এ পর্যন্ত ঘোষিত ফলাফলে যারা বিজয়ী হয়েছেন, তাদের তালিকা তুলে ধরা হলো-

বগুড়া:

বগুড়া সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন জেলা যুবলীগের সভাপতি শুভাশীষ পোদ্দার লিটন। তিনি আনারস প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৩৫ হাজার ৭৭১টি। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বগুড়া সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু সুফিয়ান সফিক ঘোড়া প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ২৪ হাজার ১৮৫টি ও জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক সুলতান মাহমুদ খান রনি মোটরসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ২১ হাজার ৫৩৬ ভোট।

সুনামগঞ্জ:

সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলা পরিষদ দ্বিতীয় মেয়াদে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতা দেওয়ান তানভীর আশরাফী চৌধুরী বাবু। আনারস প্রতীকে ২৫ হাজার ৬৬১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি জেলা বিএনপির বহিষ্কৃত নেতা আরিফুল ইসলাম জুয়েল ২১ হাজার ২২৯ ভোট পেয়েছেন।

ফরিদপুর:

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে ফরিদপুরের ভাঙ্গা ও সদরপুর উপজেলায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সদরপুর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা যুবলীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম বাবুল। আনারস প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৪০ হাজার ৩৩৩ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী শফিকুর রহমান পেয়েছেন ৩৫ হাজার ৫০৮ ভোট।

অন্যদিকে ভাঙ্গা উপজেলা চেয়ারম্যান পদে কাওসার ভূইয়া বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। দোয়াত কলম প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৬২ হাজার ৮৭০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের উপসমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক মোখলেছুর রহমান ঘোড়া প্রতীকে পেয়েছেন ৫০ হাজার ৮৩০ ভোট।

নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও অতিরিক্ত জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. জিয়াউল হক খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

যশোর:
বাঘারপাড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এস এম আশরাফুল কবীর বিপুল ফারাজী (মোটরসাইকেল প্রতীক) বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন ৫১ হাজার ৬৩০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হয়েছেন উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক সাবেক সংসদ সদস্য রণজিত রায়ের ছেলে রাজীব রায় (ঘোড়া প্রতীক)। তিনি পেয়েছেন ২০ হাজার ৭৭৯ ভোট।
অভয়নগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নওয়াপাড়া পৌরসভার সাবেক মেয়র সরদার অলিয়ার রহমান (মোটরসাইকেল প্রতীক) বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন ৫৪ হাজার ৭১ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হয়েছেন রবীন অধিকারী ব্যাচা (আনারস প্রতীক)। তিনি পেয়েছেন ৪৮ হাজার ২২১ ভোট।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া:

তৃতীয় ধাপে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর ও আশুগঞ্জ উপজেলায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাঞ্ছারামপুরে তৃতীয়াবারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম। ঘোড়া প্রতীকে তিনি ৮২ হাজার ৮১৩ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আমিনুল ইসলাম তুষার আনারস প্রতীকে পেয়েছেন দুই হাজার ১৬২।

অন্যদিকে আশুগঞ্জে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য মো. জিয়াউল করিম খাঁন সাজু। মোটরসাইকেল প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৩১ হাজার ২৪৮ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বর্তমান চেয়ারম্যান মো. হানিফ মুন্সী ঘোড়া প্রতীকে পেয়েছেন ২৮ হাজার ৩৪০ ভোট।

রিটার্নিং কর্মকর্তা ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক জেসমিন সুলতানা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, এই ফলাফল বেসরকারিভাবে প্রকাশ করা হয়েছে।

রাঙ্গামাটি:

তৃতীয় ধাপে রাঙ্গামাটির লংগদু ও নানিয়ারচর উপজেলা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে লংগদু উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বাবুল দাশ বাবু বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল বারেক সরকারকে চার হাজার ১৬০ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করে বেসরকারিভাবে জয়লাভ করেছে। আনারস প্রতীকে বাবুল দাশ বাবু পেয়েছেন ১৬ হাজার ৯৮৬ ভোট এবং তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী আব্দুল বারেক সরকার ঘোড়া প্রতীকে পেয়েছেন ১২ হাজার ৮২৬ ভোট।

অন্যদিকে নানিয়ারচরে ১৪টি ভোট কেন্দ্রের সবকয়টি ফলাফলে ৬ হাজার ১৫৯ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আনারস প্রতীকের অমর জীবন চাকমা। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী জ্যোতিলাল চাকমা পেয়েছেন ৪১৬২টি ভোট।

সাতক্ষীরা:

সাতক্ষীরা সদর ও কলারোয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মশিউর রহমান বাবু ও আমিনুল ইসলাম লাল্টু বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাতে স্ব স্ব উপজেলা রির্টানিং অফিস থেকে বেসরকারিভাবে এ ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

সাতক্ষীরা সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী মশিউর রহমান বাবু ৩১ হাজার ১৯৬ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী আওয়ামী লীগ নেতা এস এম শওকত হোসেন পেয়েছেন ২৩ হাজার ৪২ ভোট।

এদিকে কলারোয় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী আওয়ামী লীগ নেতা আমিনুল ইসলাম লাল্টু ৪৭ হাজার ৮৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে দ্বিতীয় বারের মতো নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আনারস প্রতীকের প্রার্থী আলতাফ হোসেন লাল্টু পেয়েছেন ৪২ হাজার ৭৪১ ভোট।

মৌলভীবাজার:

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে (মোটরসাইকেল) প্রতীক নিয়ে ৪৬ হাজার ৬৪০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন ইমতিয়াজ আহমেদ বুলবুল (তিনি কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুস শহীদের আপন ছোট ভাই)। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মো. রফিকুর রহমান (আনারস) প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৩০ হাজার ৭১২।

শরীয়তপুর:

শরীয়তপুরে তৃতীয় ধাপের দুটি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে। ডামুড্যা উপজেলা পরিষদে প্রথমবার নির্বাচনে অংশ নিয়ে চেয়ারম্যান হয়েছেন জেলা যুবলীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আবদুর রশিদ গোলন্দাজ। অন্যদিকে গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতা হেলিকপ্টার প্রতীকের মো. মোশাররফ সরদার।

শরীয়তপুর জেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী আবদুর রশিদ গোলন্দাজ ২৪ হাজার ৯৮ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে জয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোটরসাইক প্রতীকের প্রার্থী মো. আলমগীর পেয়েছেন ১৩ হাজার ৭১৫ ভোট। অন্যদিকে গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নির্বাচিত চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা মো. মোশারফ হোসেন (হেলিকপ্টার) প্রতীক, ২০ হাজার ১৮৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাকির হোসেন দুলাল পেয়েছেন ১৫ হাজার ৪৭৫ ভোট।

লালমনিরহাট:

জেলা সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আনারস প্রতীক নিয়ে বেসরকারিভাবে ফের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন মো. কামরুজ্জামান সুজন। ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন এরশাদুল করিম রাজু। আর বিনা প্রতিদ্বিন্দিতায় নারী ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন লতিফা বেগম লাকী।

কক্সবাজার:

জেলার রামু উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন সিরাজুল ইসলাম ভুট্টো (মোটরসাইকেল)। উখিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান বিজয়ী হয়েছেন জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী (আনারস)। টেকনাফ উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন জাফর আহম্মদ (আনারস)।

নীলফামারী:

জেলা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আবুজার রহমান আনারস প্রতীক নিয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন টিয়া পাখি প্রতীকে জ্যোতির্ময় রায়। নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন জেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি ও বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান সান্তনা চক্রবর্তী।

টাঙ্গাইল:

টাঙ্গাইলের সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে তোফাজ্জল হোসেন খান তোফা ও নাগরপুরে কেএম সালমান শামস্ চেয়ারম্যান পদে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া দেলদুয়ার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মাহমুদুল হাসান মারুফ পুনরায় চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন।

টাঙ্গাইল সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন খান (দোয়াত কলম) ও নাগরপুরে প্রয়াত আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল বাতেনের ছেলে কেএম সালমান শামস্ (আনরস) চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এছাড়া দেলদুয়ার উপজেলা চেয়ারম্যান পদে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মাহমুদুল হাসান মারুফ (কাপ পিরিচ) পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন।

খাগড়াছড়ি:

খাগড়াছড়ির মহালছড়িতে তৃতীয় ধাপে উপজেলা নির্বাচনে ভোটে জয়ী হয়ে চেয়ারম্যান র্নিবাচিত হয়েছেন জেএসএস এমএন লারমা সমর্থিত বিমল চাকমা ।

প্রথমধাপে লক্ষিছড়িতে অনুষ্ঠিত উপজেলা র্নিবাচনে ২টি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত ছিল। স্থগিতকৃত এ ২টি কেন্দ্রেও বুধবার (২৯ মে) ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। যার ভিত্তিতে লক্ষিছড়িতে চেয়ারম্যান র্নিবাচিত হন ইউপিডিএফ সমর্থিত সুপার জ্যোতি চাকমা ।

সিলেট:

তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে সিলেটের তিনটি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন নতুন দুই প্রার্থী। আর একটিতে বিজয়ী হয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান।

বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম পল্লব। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন লাউতা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা গৌছ উদ্দিন।

বালাগঞ্জে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান চেয়ারম্যান মোস্তাকুর রহমান মফুরকে পরাজিত করে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনহার মিয়া।

আর ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলায় বর্তমান চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা নুরুল ইসলামকে পরাজিত করে বিজয়ী হয়েছেন উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আশফাকুল ইসলাম সাব্বীর।