ঢাকা ০৪:৫৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কোপা আমেরিকায় জয়ে ফিরলো ব্রাজিল

  • বার্তা কক্ষ
  • আপডেট সময় : ০৪:৩৩:০৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৯ জুন ২০২৪
  • ১৫ বার পড়া হয়েছে

 

কোপা আমেরিকায় শুরুটা বিবর্ণ করেছে ব্রাজিল। কোস্টারিকার সঙ্গে গোলশূন্য ড্রয়ে মাঠ ছেড়েছে। ওই ম্যাচের কৌশল নিয়ে চলে তুমুল সমালোচনা। তাতে বেড়ে যায় আরও চাপ। কারণ প্যারাগুয়ের কাছে হোঁচট খেলে বেজে যাবে বিদায় ঘণ্টা। অবশেষে দ্বিতীয় ম্যাচে মাথা তুলে দাঁড়িয়েছে সেলেসাও শিবির। প্যারাগুয়েকে ৪-১ গোলে বিধ্বস্ত করে জয়ে ফিরেছে।

ব্রাজিলের জয়ের নায়ক ভিনিসিয়ুস জুনিয়র। প্রথমার্ধে জোড়া গোল করেছেন তিনি। তাছাড়া একটি করে গোল করেন স্যাভিও ও লুকাস পাকেতা। পাকেতার গোলটি আসে পেনাল্টির সুবাদে। প্রথমার্ধে অবশ্য পেনাল্টি পেয়েও সেটি তিনি মিস করেছেন। প্যারাগুয়েও একটি গোল শোধ দিয়েছে। দ্বিতীয়ার্ধে ফিরে ওমারের গোল ব্যবধান কমায় মাত্র। এই পরাজয়ে বিদায় নিশ্চিত হয়েছে প্যারাগুয়ের।

ঠিক যে কারণে ব্রাজিলিয়ান ফুটবল বিখ্যাত সেই সাম্বার ঝলকটা আজ মেলে ধরেছেন ভিনিসিয়ুস। প্রথম ম্যাচে সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন। যার জবাবটা সাম্বা জাদুতেই দিয়েছেন তিনি। যদিও শুরুটা আহামরি ছিল না। ম্যাচের ১৫ মিনিটেই এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল প্যারাগুয়ে। দামিয়ান বোদোদিল্লার শট ডাইভ করে দারুণ দক্ষতায় ব্রাজিল গোলকিপার আলিসন সেভ করেছেন। ব্রাজিলের তুলনায় গোলের জন্য শটও ছিল তাদের বেশি ৮-৫! তাছাড়া পেনাল্টি কিক মিস করেছেন পাকেতা। তার পর অবশ্য ৩৫ মিনিটের আগ পর্যন্ত ডেড লক ভাঙার লড়াইটা ব্রাজিল চালিয়ে গেছে। ১৫ মিনিটে আসে ৩ গোল! যার প্রথমটি আসে ভিনির কল্যাণে। ৪৩ মিনিটে স্কোর ২-০ করেন স্যাভিও। ৪৫+৫ মিনিটে সাম্বার ঢেউ তুলে স্কোর ৩-০ করেছেন ভিনি।

এখন গ্রুপ ‘ডি’ থেকে চার পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে থাকা কলম্বিয়ার পরেই আছে ব্রাজিল। কোস্টারিকাকে আজ ৩-০ গোলে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে তারা। পরের ম্যাচে কলম্বিয়ার বিপক্ষে ব্রাজিলের ড্র কিংবা জয় নিশ্চিত করবে নকআউট। কোস্টারিকার চেয়ে গোল ব্যবধানেও এগিয়ে ৯ বারের চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। তাই ম্যাচ হারলেও সম্ভাবনা শেষ হয়ে যাচ্ছে না।

প্যারাগুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ হওয়াতেই কঠিন চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছিল ব্রাজিলের। কারণ কোপায় আগের ৫ দেখাতেই ম্যাচ ড্রয়ে শেষ হয়েছে। কিন্তু ২ বছর আগে বিশ্বকাপ বাছাইয়ে প্যারাগুয়ের বিপক্ষে ৪-০ গোলের ম্যাচ জেতার নজির থাকায় প্রেরণার অভাব ছিল না। তার পরেও এই ম্যাচের ফল কী হতে পারে সেটা নিয়ে ছিল সংশয়।

এখণ গ্রুপ ‘ডি’ থেকে চার পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে থাকা কলম্বিয়ার পরেই আছে ব্রাজিল। পরের ম্যাচে কলম্বিয়ার বিপক্ষে ড্র কিংবা জয় নিশ্চিত করবে নকআউট। কোস্টারিকার চেয়ে গোল ব্যবধানেও এগিয়ে ৯বারের চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। তাই ম্যাচ হারলেও সম্ভাবনা শেষ হয়ে যাচ্ছে না।

প্যারাগুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ হওয়াতেই কঠিন চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছিল ব্রাজিলের। কারণ কোপায় আগের ৫ দেখাতেই ম্যাচ ড্রয়ে শেষ হয়েছে। কিন্তু ২ বছর আগে বিশ্বকাপ বাছাইয়ে প্যারাগুয়ের বিপক্ষে ৪-০ গোলের ম্যাচ জেতার নজির থাকায় প্রেরণার অভাব ছিল না। তার পরেও এই ম্যাচের ফল কী হতে পারে সেটা নিয়ে ছিল সংশয়। তার ওপর ছিল উত্তেজনাপূর্ণ মুহূর্ত। হলুদ কার্ড বের হয়েছে ৫টি। ছিল একটি লাল কার্ড। আন্দ্রেস কুবাসকে ৮১ মিনিটে মাঠ ছাড়তে হয়েছে। যার কারণে শেষ দিকে দশ জনের দলে পরিণত হয় প্যারাগুয়ে। ব্রাজিলের হয়ে হলুদ কার্ড পেয়েছেন ওয়েন্ডেল, ভিনিসিয়ুস ও পাকেতা। প্যারাগুয়ের হয়ে কার্ড দেখেছেন ফাবিয়ান বালবুয়েনা ও কাবেলেরো।

ব্রাজিল কোচ অবশ্য এই দিনও কৌশল বদলে করে বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন। শুরুর একাদশে রাফিনহাকে না নামিয়ে সাহসী সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। যার ফলাফলটা শেষ পর্যন্ত কাজে দিয়েছে। ৭২ মিনিটে এই রাফিনহা অবশ্য স্যাভিওর বদলি হয়ে খেলতে নেমেছিলেন।

ট্যাগস :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

সরকার চাইলে কোটা পরিবর্তন করতে পারবে, হাইকোর্টের রায় প্রকাশ

কোপা আমেরিকায় জয়ে ফিরলো ব্রাজিল

আপডেট সময় : ০৪:৩৩:০৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৯ জুন ২০২৪

 

কোপা আমেরিকায় শুরুটা বিবর্ণ করেছে ব্রাজিল। কোস্টারিকার সঙ্গে গোলশূন্য ড্রয়ে মাঠ ছেড়েছে। ওই ম্যাচের কৌশল নিয়ে চলে তুমুল সমালোচনা। তাতে বেড়ে যায় আরও চাপ। কারণ প্যারাগুয়ের কাছে হোঁচট খেলে বেজে যাবে বিদায় ঘণ্টা। অবশেষে দ্বিতীয় ম্যাচে মাথা তুলে দাঁড়িয়েছে সেলেসাও শিবির। প্যারাগুয়েকে ৪-১ গোলে বিধ্বস্ত করে জয়ে ফিরেছে।

ব্রাজিলের জয়ের নায়ক ভিনিসিয়ুস জুনিয়র। প্রথমার্ধে জোড়া গোল করেছেন তিনি। তাছাড়া একটি করে গোল করেন স্যাভিও ও লুকাস পাকেতা। পাকেতার গোলটি আসে পেনাল্টির সুবাদে। প্রথমার্ধে অবশ্য পেনাল্টি পেয়েও সেটি তিনি মিস করেছেন। প্যারাগুয়েও একটি গোল শোধ দিয়েছে। দ্বিতীয়ার্ধে ফিরে ওমারের গোল ব্যবধান কমায় মাত্র। এই পরাজয়ে বিদায় নিশ্চিত হয়েছে প্যারাগুয়ের।

ঠিক যে কারণে ব্রাজিলিয়ান ফুটবল বিখ্যাত সেই সাম্বার ঝলকটা আজ মেলে ধরেছেন ভিনিসিয়ুস। প্রথম ম্যাচে সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন। যার জবাবটা সাম্বা জাদুতেই দিয়েছেন তিনি। যদিও শুরুটা আহামরি ছিল না। ম্যাচের ১৫ মিনিটেই এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল প্যারাগুয়ে। দামিয়ান বোদোদিল্লার শট ডাইভ করে দারুণ দক্ষতায় ব্রাজিল গোলকিপার আলিসন সেভ করেছেন। ব্রাজিলের তুলনায় গোলের জন্য শটও ছিল তাদের বেশি ৮-৫! তাছাড়া পেনাল্টি কিক মিস করেছেন পাকেতা। তার পর অবশ্য ৩৫ মিনিটের আগ পর্যন্ত ডেড লক ভাঙার লড়াইটা ব্রাজিল চালিয়ে গেছে। ১৫ মিনিটে আসে ৩ গোল! যার প্রথমটি আসে ভিনির কল্যাণে। ৪৩ মিনিটে স্কোর ২-০ করেন স্যাভিও। ৪৫+৫ মিনিটে সাম্বার ঢেউ তুলে স্কোর ৩-০ করেছেন ভিনি।

এখন গ্রুপ ‘ডি’ থেকে চার পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে থাকা কলম্বিয়ার পরেই আছে ব্রাজিল। কোস্টারিকাকে আজ ৩-০ গোলে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে তারা। পরের ম্যাচে কলম্বিয়ার বিপক্ষে ব্রাজিলের ড্র কিংবা জয় নিশ্চিত করবে নকআউট। কোস্টারিকার চেয়ে গোল ব্যবধানেও এগিয়ে ৯ বারের চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। তাই ম্যাচ হারলেও সম্ভাবনা শেষ হয়ে যাচ্ছে না।

প্যারাগুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ হওয়াতেই কঠিন চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছিল ব্রাজিলের। কারণ কোপায় আগের ৫ দেখাতেই ম্যাচ ড্রয়ে শেষ হয়েছে। কিন্তু ২ বছর আগে বিশ্বকাপ বাছাইয়ে প্যারাগুয়ের বিপক্ষে ৪-০ গোলের ম্যাচ জেতার নজির থাকায় প্রেরণার অভাব ছিল না। তার পরেও এই ম্যাচের ফল কী হতে পারে সেটা নিয়ে ছিল সংশয়।

এখণ গ্রুপ ‘ডি’ থেকে চার পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে থাকা কলম্বিয়ার পরেই আছে ব্রাজিল। পরের ম্যাচে কলম্বিয়ার বিপক্ষে ড্র কিংবা জয় নিশ্চিত করবে নকআউট। কোস্টারিকার চেয়ে গোল ব্যবধানেও এগিয়ে ৯বারের চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। তাই ম্যাচ হারলেও সম্ভাবনা শেষ হয়ে যাচ্ছে না।

প্যারাগুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ হওয়াতেই কঠিন চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছিল ব্রাজিলের। কারণ কোপায় আগের ৫ দেখাতেই ম্যাচ ড্রয়ে শেষ হয়েছে। কিন্তু ২ বছর আগে বিশ্বকাপ বাছাইয়ে প্যারাগুয়ের বিপক্ষে ৪-০ গোলের ম্যাচ জেতার নজির থাকায় প্রেরণার অভাব ছিল না। তার পরেও এই ম্যাচের ফল কী হতে পারে সেটা নিয়ে ছিল সংশয়। তার ওপর ছিল উত্তেজনাপূর্ণ মুহূর্ত। হলুদ কার্ড বের হয়েছে ৫টি। ছিল একটি লাল কার্ড। আন্দ্রেস কুবাসকে ৮১ মিনিটে মাঠ ছাড়তে হয়েছে। যার কারণে শেষ দিকে দশ জনের দলে পরিণত হয় প্যারাগুয়ে। ব্রাজিলের হয়ে হলুদ কার্ড পেয়েছেন ওয়েন্ডেল, ভিনিসিয়ুস ও পাকেতা। প্যারাগুয়ের হয়ে কার্ড দেখেছেন ফাবিয়ান বালবুয়েনা ও কাবেলেরো।

ব্রাজিল কোচ অবশ্য এই দিনও কৌশল বদলে করে বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন। শুরুর একাদশে রাফিনহাকে না নামিয়ে সাহসী সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। যার ফলাফলটা শেষ পর্যন্ত কাজে দিয়েছে। ৭২ মিনিটে এই রাফিনহা অবশ্য স্যাভিওর বদলি হয়ে খেলতে নেমেছিলেন।