ঢাকা ০৩:৫৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে সাংবাদিকদের জন্য ৪৫ লাখ টাকার পুরস্কার ঘোষণা আওয়ামী সভাপতির

  • বার্তা কক্ষ
  • আপডেট সময় : ০৮:০৫:১৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩ জুলাই ২০২৪
  • ১৮ বার পড়া হয়েছে

যশোর প্রতিনিধি:
শহীদ পরিবারের বাড়ি ভাংচুরের ঘটনায় নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে
সাংবাদিকদের জন্য ৪৫ লাখ টাকার পুরস্কার ঘোষণা করেছেন যশোর জেলা
আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা শহিদুল ইসলাম মিলন।

আজ মঙ্গলবার
দুপুরে প্রেসক্লাব যশোরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন তিনি।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, গত ২৭ জুন দুপুরে সদর উপজেলার
হামিদপুর পশ্চিমপাড়ার বাসিন্দা আসাদুজ্জামানের বাড়িঘর এস্কেভেটর
দিয়ে ভেঙে গুড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় তাকে ও তার ছেলের সম্পৃক্ততার
অভিযোগ আনা হয়েছে।

সংবাদ মাধ্যমে লেখা হয়েছে আমরা উপস্থিত
থেকে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকারসহ কোটি টাকার মালামাল লুট করে
এনেছি। যা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন।

তার দাবি প্রকৃত পক্ষে
বিবাদমান জমির মালিক তার বেয়াই নুরুল ইসলামের। আসাদুজ্জামান
গং জোরপূর্বক তা দখল করে রেখেছে। তারা নিজেরাই বাড়িঘর ভেঙে
দোষারাপ করছে।
তিনি সংবাদ সম্মেলনে বলেন, সাংবাদিকরা যদি প্রমাণ করতে পারে
২৭জুন আমি ঘটনাস্থলে ছিলাম তাহলে ২০ লাখ টাকা, আমার ছেলে ছিল
প্রমাণ করতে পারলে ১৫ লাখ টাকা ও যে জমি নিয়ে বিরোধ তার মালিক
আসাদুজ্জামান গং প্রমাণ করতে পারলে ১০ লাখ টাকা পুরস্কার দেয়া হবে।সংবাদ সম্মেলনে জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি হুমায়ুন কবির কবু,
আলহাজ্ব ফিরোজ খান, যুগ্ম সম্পাদক সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট
মনিরুল ইসলামসহ বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন

ট্যাগস :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

সরকার চাইলে কোটা পরিবর্তন করতে পারবে, হাইকোর্টের রায় প্রকাশ

নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে সাংবাদিকদের জন্য ৪৫ লাখ টাকার পুরস্কার ঘোষণা আওয়ামী সভাপতির

আপডেট সময় : ০৮:০৫:১৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩ জুলাই ২০২৪

যশোর প্রতিনিধি:
শহীদ পরিবারের বাড়ি ভাংচুরের ঘটনায় নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে
সাংবাদিকদের জন্য ৪৫ লাখ টাকার পুরস্কার ঘোষণা করেছেন যশোর জেলা
আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা শহিদুল ইসলাম মিলন।

আজ মঙ্গলবার
দুপুরে প্রেসক্লাব যশোরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন তিনি।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, গত ২৭ জুন দুপুরে সদর উপজেলার
হামিদপুর পশ্চিমপাড়ার বাসিন্দা আসাদুজ্জামানের বাড়িঘর এস্কেভেটর
দিয়ে ভেঙে গুড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় তাকে ও তার ছেলের সম্পৃক্ততার
অভিযোগ আনা হয়েছে।

সংবাদ মাধ্যমে লেখা হয়েছে আমরা উপস্থিত
থেকে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকারসহ কোটি টাকার মালামাল লুট করে
এনেছি। যা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন।

তার দাবি প্রকৃত পক্ষে
বিবাদমান জমির মালিক তার বেয়াই নুরুল ইসলামের। আসাদুজ্জামান
গং জোরপূর্বক তা দখল করে রেখেছে। তারা নিজেরাই বাড়িঘর ভেঙে
দোষারাপ করছে।
তিনি সংবাদ সম্মেলনে বলেন, সাংবাদিকরা যদি প্রমাণ করতে পারে
২৭জুন আমি ঘটনাস্থলে ছিলাম তাহলে ২০ লাখ টাকা, আমার ছেলে ছিল
প্রমাণ করতে পারলে ১৫ লাখ টাকা ও যে জমি নিয়ে বিরোধ তার মালিক
আসাদুজ্জামান গং প্রমাণ করতে পারলে ১০ লাখ টাকা পুরস্কার দেয়া হবে।সংবাদ সম্মেলনে জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি হুমায়ুন কবির কবু,
আলহাজ্ব ফিরোজ খান, যুগ্ম সম্পাদক সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট
মনিরুল ইসলামসহ বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন